সদ্য সংবাদ :
বিনোদন

গানকেই ধ্যান জ্ঞান করেছেন সঙ্গীত শিল্পী সুমি

Published : Sunday, 7 January, 2018 at 11:25 AM
শাহীন চৌধুরী: গানকেই ধ্যান জ্ঞান তপস্যা বা সাধনার বিষয়ে পরিনত করেছেন এ প্রজন্মের জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী সুমি আক্তার। আর এজন্য তিনি সাফল্যও পেয়েছেন। সঙ্গীতের সব ধারায়ই রয়েছে তার অবাধ বিচরণ। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন সংগঠনের কাছ থেকে ১৯টি পদক পেয়েছেন। দেশে এবং বিদেশ থেকে তার চারটি এ্যালবাম বেরিয়েছে যার সবগুলো মিউজিক ভিডিও। এই এ্যালবামগুলো খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। সম্প্রতি এবিনিউজ২৪ বিডি ডটকমের সাথে আলাপকালে সুমি তার মনের কথা খোলামেলা ভাবে প্রকাশ করেন। তার সাক্ষাতকারটি নিচে তুলে ধরা হলো: 
প্রশ্ন: সঙ্গীত জগতে কিভাবে প্রবেশ করলেন?
সুমি: আমাদের বাড়ি জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবিতে। সেখানে রবীন্দ্র পরিষদ নামে একটি সংগঠন আছে। অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আবু সাঈদ এবং ওয়াহিদুল হক স্যারের মত ব্যাক্তিরাও সেখানে যেতেন। ১৯৯৫ সালে আমাদের এলাকায় একটি বড় বন্যা হয়। ওই সময় রবীন্দ্র পরিষদ বন্যার্তদের সাহায্যের জন্য একটি সঙ্গীতানুষ্ঠানের আয়োজন করে। সেই অনুষ্ঠানে প্রথম আমি আনুষ্ঠানিক ভাবে গান পরিবেশন করি। তখন আমি সবেমাত্র তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। সেই থেকে যাত্রা শুরু। এ ছাড়া আমার স্কুলে আমাকে ছাড়া জাতীয় সঙ্গীতই হতো না। আমি রামতনু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিলাম। জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার জন্য আমার সেখানে খুবই কদর ছিল। আমি স্কুলে না গেলে আমাদের শরীরচর্চা শিক্ষক শহীদুল ইসলাম খুবই রাগ করতেন। 
প্রশ্ন: আপনার সঙ্গীতের হাতে খড়ি কার কাছে? 
সুমি: বড় বড় শিল্পীদের দেখে দেখেই আমার গান গাওয়া শুরু। আমি যে কোন গান শুনে সেভাবেই গাইতে পারতাম। আর আনুষ্ঠানিক শিক্ষা যদি বলেন সেটা হচ্ছে আমার প্রথম গুরু হুমাযূন রেজা রাঙ্গা স্যারের হাতে। 
প্রশ্ন: আপনার পরিবারে কেউ গান গাইতেন কিনা?
সুমি: আমার ছোট চাচা হোসেন মুন্সী ফোক গান করতেন। ছোটবেলা তার গান শুনেও কিছুটা অনুপ্রেরণা পেয়েছি। কিন্তু গান গাওয়ার ক্ষেত্রে আমার সবচেয়ে বড় প্রেরণা আমা মা সখিনা বেগম। তিনি উৎসাহ না দিলে আমি শিল্পী হতে পারতাম না। 
প্রশ্ন: আপনার কোনও এ্যালবাম বেরিয়েছে কিনা?
সুমি: আমার এ পর্যন্ত চারটি এ্যালবাম বেরিয়েছে। এরমধ্যে তিনটি বাংলাদেশ থেকে আর একটি কলকাতা থেকে। আমার প্রথম এ্যালবাম- রাত নিঝুম’ জি-সিরিজ এটি প্রকাশ করেছে। দ্বিতীয় এ্যালবাম- অচেনা কবিতা’ এটি প্রকাশ করেছে ঈগল মিউজিক। তৃতীয় এ্যালবাম কলকাতা থেকে বেরিয়েছে যার নাম- মৈত্রী’। চতুর্থ এ্যালবাম- পাতা ঝরা কথা’ সিডি চয়েস-এর ব্যানারে এ্যালবামটি বেরিয়েছে। 
প্রশ্ন: আপনি বিটিভির তালিকাভুক্ত শিল্পী হয়েছেন কিনা? 
সুমি: আমি বিটিভিতে আধুনিক গানের শিল্পী হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়েছি প্রায় এক বছর আগে। এজন্য আমাকে যথেষ্ট বেগ পেতে হয়েছে কারন বিটিভিতে আধুনিক গানের শিল্পী হিসেবে তালিকাভুক্ত হওয়া খুবই কঠিন কাজ। আমি চাইলে বহু আগেই ফোক গানের শিল্পী হিসেবে তালিকাভুক্ত হতে পারতাম কিন্তু আমিও হাল ছাড়তে রাজি হইনি। 
প্রশ্ন: আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি? 
সুমি: গান নিয়ে ভালো কিছু করতে চাই। বলতে পারেন গানই আমার ধ্যান জ্ঞান সাধনা। 
প্রশ্ন: সঙ্গীতের বাইরে অন্য কোন মিডিয়ায় কাজ করছেন কিনা?
সুমি: ঢাকাতে আমার কিন্তু মডেলিং দিয়ে মিডিয়াতে যাত্রা শুরু। আমি প্রথম রামেন্দু মজুমদারের এ্যাডফার্ম এক্সপ্রেশন- এ কাজ করি। ওই সময় আমি বেঙ্গল ফার্নিচারের একটি বিজ্ঞাপন চিত্রে অংশগ্রহন করি। এরপর আফজাল হোসেনের একটি সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপনে অংশ নেই। পরে তার ডাচবাংলা ব্যাংকের একটি ক্র্যাচকার্ডের বিজ্ঞাপনেও কাজ করি। তারিক আনাম ভাইয়ের একটি ন্যাপকিনের বিজ্ঞাপন করি সারা দেশে যার বিলবোর্ড দেয়া হয়। একইসঙ্গে ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের একটি বিজ্ঞাপনও করি। আমি দ্রিক গ্যালারীর নিয়মিত মডেল ছিলাম। 
প্রশ্ন: তাহলে মডেলিং ছাড়লেন কেন? 
প্রশ্ন: আপনি কি দেশের বাইরে কোন শো করেছেন? সুমি: কেন যেন শেষ পর্যন্ত ভালো লাগলো না। আমার মনে হলো সঙ্গীতকেই আমার ধরে রাখা উচিৎ তাই ফিরে এলাম। এমনকি শুধু মডেলিং নয় আমি কলকাতায় সিনেমায় কাজ করার অফার পেয়েছিলাম আরও ১১ বছর আগে কিন্তু করিনি। কারন তখন আমি অনেক ছোট ওই অফার রাখতে হলে আমাকে শুটিং-এর জন্য দীর্ঘ সময় সেখানে থাকতে হোত যা আমার পক্ষে সম্ভব ছিল না। তাছাড়া ওই সময় দেশে আমার অনেক শো-ছিল। আমি কলকাতায় থাকলে দেশের শো-গুলো মিস হয়ে যেত এই কারণেই আর অভিনয় করা হয়ে উঠেনি। মাকসুদ জামিল মিন্টু ভাই এখানো আমাকে বকেন কেন আমি মডেলিং ছাড়লাম সেজন্য।
সুমি: হ্যাঁ আমি দেশের বাইরে সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া এবং ভারতে শো করেছি।
প্রশ্ন: আপনি বাংলা ছ্ড়াা আর কোন গান করেন কিনা?
সুমি: বাংলা ছাড়া আমি হিন্দি গানও করি। ৬শ’ হিন্দি গান আমার মুখস্ত। বাংলা ফোক, আধুনিক মিলিয়ে প্রায় আড়াই হাজার গান আমার কালেকশনে আছে। 
প্রশ্ন: স্টেজ শো-এর ক্ষেত্রে আপনি কোন ধরনের গানকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন?
সুমি: এক্ষেত্রে আমি দর্শকদের মুড বুঝে গান করার চেষ্টা করি। অনেক সময় প্রথম দিকে যাদের দেয়া হয় তারা সব জনপ্রিয় সব গান গেয়ে ফেলে আমি তখন আমার তালিকা পরিবর্তন করে এমন গান করি যাতে দর্শকরা ¯্রােতারা মুগ্ধ হয়ে যায়। 
প্রশ্ন: আপনার পরিবারে আর কে কে আছেন?
সুমি: ছোট বেলায় আমি বাবাকে হারিয়েছি। ১৯৯২-তে আমার বাবা মারা যান। তারপর পর থেকে আমার মা-ই সব। দুই বোন এক ভাইয়ের মধ্যে আমি সবার বড়। ছোট ভাই সুজন ব্যবসা করে। বোন মৌসুমির একাধিক পার্লার রয়েছে। ওরা দুজনই বিয়ে করেছে। 
প্রশ্ন: আপনি বিয়ের ব্যাপারে কিছু ভাবছেন কিনা?
সুািম: আরেকটু গুছিয়ে ওঠার পর আমিও বিয়ে করে ফেলবো। 
প্রশ্ন: আপনার পড়াশুনা কি শেষ হয়েছে?
 সুমি: আমি এশিয়ান ইউনিভার্সিটি থেকে বাংলায় অনার্স শেষ করেছি। মাস্টার্স আর করা হয়নি। এখন হযতো আর সম্ভবও হবে ন্ া
প্রশ্ন: সঙ্গীত চর্চার ক্ষেত্রে এখনো কি কোন গুরুর দিক্ষা নিচ্ছেন? 
সুমি: হ্যাঁ শিক্ষার তো শেষ নেই। এখানো আমি কৃষ্ণকান্ত আচার্য, সৈয়দ আব্দুল হাদি ও নীলিমা দাশের কাছে শিখছি। আর আমার ক্ল্যাসিক্যাল শিক্ষার গুরু হচ্ছেন কৃতি রঞ্জন রায়। 
প্রশ্ন: আপনার জীবনে প্রেম ভালোবাসা এসেছে কিনা?
সুমি: অনেকবারই এসেছে কিন্তু ক্যারিয়ার গড়েতে গিয়ে সেখান থেকে সরে আসতে হয়েছে। এখন গানকে এত ভালোবেসে ফেলেছি যে আর অন্য প্রেমের প্রয়োজন বোধ করছি না। 
প্রশ্ন: আপনার সুখের স্মৃতি কিছু থাকলে বলুন?
সুমি: আমার শেষ এ্যালবামটি খুবই ভালো চলছে। এটাই আমার বড় সুখ। 
প্রশ্ন: কখনো কি কোন বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন?
সুমি: আমি সব সময়ই একটু বেশী সাহসী মেয়ে তাই এ্গুলো কেয়ার করি না। দেখা গোলো সামনে বোমা ফাটছে তারপরও আমি শহীদ মিনারে গান চালিয়ে যাচ্ছি সুতরাং আমার জীবনে এ ধরনের কোনও সমস্যা আসেনি। আশা করছি কোন দিন আসবেও না।        


 এবিনিউজ টুয়েন্টিফোর বিডিডটকম//এলএল//






সম্পাদক : শাহীন চৌধুরী
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : হেলেনা বিলকিস চৌধুরী, নির্বাহী সম্পাদক : সৈয়দ আফজাল বাকের
ঢাকা অফিস: ২/১ হুমায়ুন রোড (কলেজ গেট) মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭ ফোন: ৮৮-০২-৯১১৯১১৬, ৯১৩৯২৭৪ হটলাইন: ০১৭১১-৫৮৩৬২৩, ০১৭১৮-৬৬৯৫৯৬, চট্টগ্রাম অফিস: নাসিমন ভবন ( দ্বিতীয় তলা) ১২১, নূর আহমেদ রোড, চট্টগ্রাম ফোন: ০৩১-২৫৫৭৫৪২ হটলাইন- ০১৭১১-৩০৭১৭১, E-mail : abnews13@gmail.com, Web : www.abnews24bd.com, Developed by i2soft Technology Ltd.
Close