সদ্য সংবাদ :
জাতীয়

হাওর অঞ্চলের উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা নেয়া হয়েছে : পরিকল্পনা মন্ত্রী

Published : Wednesday, 15 May, 2019 at 8:54 PM
স্টাফ রিপোর্টার: পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাওর অঞ্চলের মানুষের দুঃখ কষ্ট উপলব্ধি ও এ অঞ্চলের সম্ভাবনার বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে নানামুখী পরিকল্পনা গ্রহণ করে কাজ করছে। হাওরের উন্নয়নের জন্য গৃহীত পরিকল্পনার জন্য ইতোমধ্যে ৫শ কোটি টাকার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।

 প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সুনামগঞ্জ থেকে নেত্রকোনা পর্যন্ত ফ্লাইওভার নির্মাণের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।  মন্ত্রী হাওর অঞ্চলকে ধান উৎপাদনের ভান্ডার উল্লেখ করে বলেন, সুনামগঞ্জের হাওর এলাকায় একটি এগ্রিকালচার ট্রেনিং ইনস্টিটিউট স্থাপন করা হবে। হাওরের জীববৈচিত্র্য রক্ষা করে কিভাবে এলাকার টেকসই চাষাবাদ, মৎস্য সম্পদ এবং বন-পরিবেশের উন্নয়ন করা যায় সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের সুচিন্তিত মতামত ও পরামর্শ নিয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। মন্ত্রী আজ (১৫ মে) বিকালে রাজধানী কাকরাইলে আইডিইবি ভবনে ‘হাওর এলাকায় টেকসই চাষাবাদ এবং মস্য, বন ও পরিবেশ রক্ষার্থে করণীয়” বিষয়ক আইডিইবি’র সুপারিশ উপস্থাপন ও আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

আইডিইবি’র সভাপতি এ কে এম এ হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহিবুর রহমান মানিক এমপি, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি, ড. জয়া সেনগুপ্তা এমপি, পীর ফজলুর রহমান এমপি। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইডিইবি স্টাডি এন্ড রিসার্চ সেলের রিসার্চ ফেলো প্রকৌশলী ইয়াকুব হোসেন শিকদার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আইডিইবি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামসুর রহমান।

মূল প্রবন্ধে হাওর এলাকার টেকসই চাষাবাদ এবং মৎস্য, বন ও পরিবেশ রক্ষার্থে ১৭টি সুপারিশ বিবেচনার জন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। উপস্থাপিত সুপারিশের মধ্যে উল্লেখ্য হচ্ছে-হাওরের টেকসই উন্নয়ন ও ফসল রক্ষার জন্য ডুবন্ত বাঁধ নির্মাণ, বর্ষার পানি দ্রুত নেমে যাওয়ার জন্য নদী খালে প্রয়োজনীয় ড্রেজিং করা, ড্রেজিংয়ের মাটি দিয়ে  হাওরের নিচু এলাকায় চার বা তদুর্দ্ধ মিটারের পিডব্লিউডি লেভেলের জমির পরিমাণ বৃদ্ধি করা, পাম্পের মাধ্যমে পানি সেচের মাধ্যমে কমিয়ে নভেম্বর মাসে বোরো ধান রোপন করা, ধানের পাশাপাশি চৈতালী ফসল ফলনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা, ডুবন্ত বাধ সংলগ্ন জমি উঁচু করে ২/৩ কিলোমিটার দূরে দূরে গুচ্ছ গ্রাম গড়ে তোলা, ডুবন্ত বাঁধে ক্লোজওয়ের ব্যবস্থা না রেখে স্লুইচ গেট নির্মাণ করা, পানি উন্নয়ন বোর্ডের জনবল স্বল্পতা দূর করে সার্ভেয়ার থেকে নির্বাহী প্রকৌশলী পর্যন্ত জনবলের ঘাটতি পূরণ করা, মাছের প্রজনন মৌসুমে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ও মাছের অভয়াশ্রম সৃষ্টি করা,  ডবুন্ত বাঁধের উভয় পাশে ও উঁচু জায়গায় ব্যাপকভাবে বনায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করা, ড্রোন ব্যবহার করে বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ জোরদার করা, হাওর গবেষণা ইনস্টিটিউট স্থান করে গবেষণা কার্যক্রম জোরদার করা। 

বিশেষ অতিথিবৃন্দ হাওর অঞ্চলের সামগ্রিক উন্নয়নে অত্যন্ত সময়োপযোগী সুপারিশ প্রণয়ন ও উপস্থাপনের আয়োজন করায় আইডিইবিকে ধন্যবাদ জানান। তারা বলেন, উপস্থাপিত সুপারিশ অনুযায়ী হাওর অঞ্চলের উন্নয়নে সরকারের পরিকল্পনা গ্রহণে বিষয়গুলো জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করা হবে। তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী দেশের সুষম ও টেকসই উন্নয়নে আন্তরিক। জাতির স্বার্থে আইডিইবি’র সুপারিশসমূহ প্রধানমন্ত্রী সক্রিয় বিবেচনায় নেবেন বলে তারা উল্লেখ করেন। 




এবিনিউজ টুয়েন্টিফোর বিডিডটকম//এফ// 
               







জাতীয় পাতার আরও খবর


  • সম্পাদক : শাহীন চৌধুরী
    ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: হেলেনা বিলকিস চৌধুরী, নির্বাহী সম্পাদক: বরুন ভৌমিক নয়ন, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: সৈয়দ আফজাল বাকের
    ঢাকা অফিস: ২/১ হুমায়ুন রোড (কলেজ গেট) মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭ ফোন: ৮৮-০২-৯১১৯১১৬, ৯১৩৯২৭৪ হটলাইন: ০১৭১১-৫৮৩৬২৩, ০১৭১৭-০৯৮৪২৮, চট্টগ্রাম অফিস: নাসিমন ভবন ( দ্বিতীয় তলা) ১২১, নূর আহমেদ রোড, চট্টগ্রাম ফোন: ০৩১-২৫৫৭৫৪২ হটলাইন- ০১৭১১-৩০৭১৭১, E-mail : [email protected], Web : www.abnews24bd.com, Developed by i2soft Technology Ltd.
    Close