সদ্য সংবাদ :
বিশেষ সংবাদ

৩ হাজার কোটি টাকায় জ্বালানি তেল সরবরাহের পাইপলাইন নির্মাণ কাজ শিগগিরই শুরু হচ্ছে

Published : Tuesday, 11 June, 2019 at 9:49 PM
শাহীন চৌধুরী: প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে জ্বালানি তেল সরবরাহের পাইপলাইন নির্মাণের কাজ শিগগিরই শুরু হচ্ছে। দেশের বিভিন্ন স্থানে নিরবচ্ছিন্ন ভাবে জ্বালানি তেল সরবরাহ নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এজন্য ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত ৩০৫ কিলোমিটার পাইপলাইন স্থাপন করা হবে। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের। 

এই প্রকল্পের প্রথম ধাপ বাস্তবায়নের দায়িত্ব পাওয়া বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন ব্রিগেডের অনুকূলে ইতোমধ্যেই ১ হাজার ৫৫ কোটি ৬৯ লাখ ৫৮ হাজার টাকা পরিশোধ করেছে বিপিসি। প্রকল্পের অধীনে ডিজেল পাঠানোর জন্য চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে নারায়ণগঞ্জের গোদনাইল ডিপো পর্যন্ত ২৩৭ কিলোমিটার দীর্ঘ ১৬ ইঞ্চি ব্যাসের পাইপ, গোদনাইল থেকে ফতুল্লা পর্যন্ত ৯ কিলোমিটার ১০ ইঞ্চি ব্যাসের এবং কুমিল্লা থেকে চাঁদপুর পর্যন্ত ৬ ইঞ্চি ব্যাসের ৫৯ কিলোমিটার পাইপলাইন বসানো হবে। 

সূত্র জানায়, বর্ষা মৌসুমের পরই ৩০৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পাইপ লাইপ বসানোর কাজ পুরোদমে শুরু হবে। ইতিমধ্যে প্রকল্পের বেসিক ডিজাইন অনুমোদন হয়ে ডিটেইল ডিজাইনের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। প্রকল্পের আওতায় কুমিল্লায় একটি পাম্প হাউস থাকবে। পাইপ লাইনের কোনো অংশে সংস্কার বা মেরামতের প্রয়োজন হলে তেলের অপচয় রোধে ব্লক বাল্ব স্টেশন থাকবে। এ ছাড়া মাটির ৫-৬ ফুট গভীরে এ পাইপ লাইনে বসানো থাকবে অত্যাধুনিক সেন্সর সিস্টেম। এর ফলে যদি কোথাও পাইপ লাইনের ওপর খননকাজ বা আঘাত করা হয় সঙ্গে সঙ্গে সংকেত চলে যাবে কনট্রোল রুমে।

এই প্রকল্প ২০১৮ সালের ৯ অক্টোবর একনেকে অনুমোদন হয়। ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ২ হাজার ৮৬১ কোটি টাকা। এর অধীনে ৪৩৭ একর জমি অধিগ্রহণ করা হবে। বিপিসি জানায়, সারা দেশে জ্বালানি তেল পরিবহনে বর্তমানে বিপিসিকে ছোট ছোট অয়েল ট্যাংকার, রেলের ওয়াগন আর সড়কপথে লরির ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম পাইপলাইন হয়ে গেলে সারাদেশে কম খরচে নিরাপদে দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিরবচ্ছিন্ন ডিজেল সরবরাহ দেওয়া সম্ভব হবে। বৈরী আবহাওয়া, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বন্যা, যানজট, হরতাল, অবরোধ, রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতার সময়ও অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি হিসেবে জ্বালানি সরবরাহ নিরবচ্ছিন্ন রাখা যাবে।
এ প্রসঙ্গে বিপিসি’র পরিচালক মো. আলতাফ হোসেন চৌধুরী বলেন, সরকার অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। এটি বাস্তবায়িত হলে একদিকে তেল চুরি, অপচয় রোধ হবে অন্যদিকে দ্রুততম সময়ে কম খরচে সহজে জ্বালানি তেল পৌঁছানো যাবে। বিপিসির নিজস্ব অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। তিনি বলেন, পর্যায়ক্রমে সারা দেশে পাইপলাইনের মাধ্যমে জ্বালানি তেল সরবরাহের নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে বিপিসির। 

তিনি জানান, বহির্নোঙরে বড় জাহাজ (মাদারভ্যাসেল) থেকে ছোট জাহাজে (লাইটার ট্যাংকার) করে শোধিত ও অশোধিত তেল পতেঙ্গার প্রধান স্থাপনাগুলোতে নিয়ে আসতে হয়। তাই সিঙ্গেল পয়েন্ট মুরিং (এসপিএম) উইথ ডাবল পাইপলাইন প্রকল্পের মাধ্যমে আমদানি করা তেল দুইটি লাইনে পতেঙ্গা নিয়ে আসার প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। একটি পাইপলাইন দিয়ে শোধিত তেল পদ্মা, মেঘনা, যমুনার তৈলাধারে চলে যাবে। আরেকটি লাইন দিয়ে অশোধিত তেল ইস্টার্ন রিফাইনারিতে চলে যাবে বলে তিনি জানান।

 


এবিনিউজ টুয়েন্টিফোর বিডিডটকম//এফ//







সম্পাদক : শাহীন চৌধুরী
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: হেলেনা বিলকিস চৌধুরী, নির্বাহী সম্পাদক: বরুন ভৌমিক নয়ন, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: সৈয়দ আফজাল বাকের
ঢাকা অফিস: ২/১ হুমায়ুন রোড (কলেজ গেট) মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭ ফোন: ৮৮-০২-৯১১৯১১৬, ৯১৩৯২৭৪ হটলাইন: ০১৭১১-৫৮৩৬২৩, ০১৭১৭-০৯৮৪২৮, চট্টগ্রাম অফিস: নাসিমন ভবন ( দ্বিতীয় তলা) ১২১, নূর আহমেদ রোড, চট্টগ্রাম ফোন: ০৩১-২৫৫৭৫৪২ হটলাইন- ০১৭১১-৩০৭১৭১, E-mail : [email protected], Web : www.abnews24bd.com, Developed by i2soft Technology Ltd.
Close