সদ্য সংবাদ :
বিশেষ সংবাদ

পল্লী বিদ্যুতের ট্রান্সফরমার ক্রয়ে অনিয়মের অভিযোগ

Published : Saturday, 25 January, 2020 at 7:43 PM
শাহীন চৌধুরী: বিদ্যুতের বিতরণ ট্রান্সফরমার কেনার প্রক্রিয়ায় সরকারি ম্যানুয়াল ও নিজেদের দরপত্রের চাহিদা উপেক্ষা করে একটি বিশেষ কোম্পানিকে কার্যাদেশ দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (আরইবি) সম্পর্কে। ওই বিশেষ কোম্পানিটির মালিক আরইবির চেয়ারম্যানের ঘনিষ্ঠ আত্মীয় বলে জানা গেছে। আরইবির ‘পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম সম্প্রসারণের মাধ্যমে ১৫ লাখ গ্রাহক সংযোগ প্রকল্প’-এ এই অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় ও আরইবির সংশ্লিষ্ট দুটি ভিন্ন সূত্র জানায়, ওই ট্র্রান্সফরমার কেনার জন্য আরইবি গত বছর ১১ সেপ্টেম্বর দরপত্র আহ্বান করে। সেই দরপত্রে ‘সিআরজিও’ এবং ‘অ্যামোরফস’-এই দুই ধরণের ট্রান্সফরমারই সরবরাহের বিধান রাখা হয়। অর্থাৎ কোনো দরদাতা তাঁর সুবিধামত ওই দুটির যে কোনো এক ধরণের ট্রান্সফরমার সরবরাহের জন্য দর প্রস্তাব করতে পারবেন।

গত বছর ৩০ সেপ্টেম্বর ওই দরপ্রস্তাব খোলা ও মূল্যায়নের পর দেখা যায়, দরপত্রের চারটি প্যাকেজের মধ্যে তিনটিতে টিএস ট্রান্সফরমারস লিমিটেড নামের একটি কোম্পানি এবং একটি প্যাকেজে কনফিডেন্স ইলেকট্রিক লিমিটেড নামের আরেকটি কোম্পানি সর্বনিম্ন দরদাতা হয়েছে। দরপত্রে এই দুটি কোম্পানিই  ‘অ্যামোরফস’ ট্রান্সফরমার সরবরাহের প্রস্তাব দিয়েছে । 

এই অবস্থায় আরইবি ‘অ্যামোরফস’ ট্রান্সফরমার না কেনার পায়তারা শুরু করে। তাঁরা যুক্তি দেখায় যে, সংশ্লিষ্ট প্রকল্পটি সরকারি অর্থায়নে বাস্তবায়িত হচ্ছে। সরকারি অর্থায়নের কোনো প্রকল্পে ‘অ্যামোরফস’ ট্রান্সফরমার কখনো ব্যবহার করা হয়নি। যদিও এই ট্রান্সফরমারের নিজস্ব লস (সিস্টম লস) অনেক কম, কিন্তু এর মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণের জ্ঞান আরইবির জনবলের প্রায় অজানা।


কিন্তু প্রশ্ন হল-আরইবির বিতরণ ব্যবস্থায় এখন যে প্রায় ৯০ হাজার (৮ শতাংশ) অ্যামোরফস ট্রান্সফরমার আছে সেগুলো চলছে কিভাবে? আর দরপত্রেই বা ‘অ্যামোরফস’ ট্রান্সফরমার সরবরাহের বিধান রাখা হয়েছিল কেন? সর্বোপরি, বিতরণ ব্যবস্থার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনার বিধানসম্বলিত বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় প্রণীত যে ‘ম্যানুয়াল’ রয়েছে, সেখানেও ‘অ্যামোরফস’ ট্রান্সফরমার কেনা অনুমোদিত। সেই কারণে এর আগেও “আরইই-এসডিপি অ্যান্ড আইডি’ শীর্ষক একটি প্রকল্পের দরপত্রে আরইবি ‘অ্যামোরফস’ ট্রান্সফরমার সরবরাহের বিধান রাখতে আপত্তি করলে মন্ত্রণালয় সে আপত্তি নাকচ করে দেয় এবং এ ধরণের কেনাকাটার ক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়ের ম্যানুয়াল আনুসরণের নির্দেশ দেয়। অথচ আরইবি আবার সেই একই আপত্তির কথা বলছে। তা-ও আবার নিজেদের দরপত্রের বিধান উপেক্ষা করে।

সূত্রগুলো জানায়, আরইবি সর্বনিম্ন দরদাতা দুটি কোম্পানিকে বাদ দিয়ে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন দরদাতা দুটি কোম্পানিকে কার্যাদেশ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই দুটি কোম্পানি হচ্ছে-পাশা ট্রান্সফরমারস লিমিটেড এবং ভিকার ইলেকট্রিক্যালস লিমিটেড। এর মধ্যে পাশা ট্রান্সফরমারের মালিক কামাল পাশা আরইবি চেয়ারম্যানের নিকটাত্মীয়। এ ছাড়া আরও একজন ঘনিষ্ঠ আত্মীয় ওই কোম্পানির উঁচু পদে কাজ করছেন। তাঁদেরকে কাজটি পাইয়ে দেওয়ার জন্যই আরইবি চেষ্টা করছে।

আরইবি এবং পিডিবিতে কর্মরত কয়েকজন জ্যেষ্ঠ প্রকৌশলী বলেন, সিআরজিও এবং অ্যামোরফস ট্রান্সফরমারের মধ্যে যে পার্থক্য তাতে অ্যামোফরস ট্রান্সফরমারই বেশি সুবিধাজনক। কেননা, প্রযুক্তির দিক দিয়ে এটি এগিয়ে। এই ট্রান্সফরমারের কোর ম্যাটিরিয়াল হচ্ছে অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল। এই ট্রান্সফরমার তৈরিতে খরচ বেশি। অথচ এর নিজস্ব লস (সিস্টেম লস) কম। ফলে এটি ব্যবসায়ীদের তুলনায় কোনো প্রতিষ্ঠান বা দেশের জন্য বেশি লাভজনক। দেশের অন্তত দুটি প্রতিষ্ঠান এই ট্রান্সফরমার তৈরি করছে এবং তা অন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন।
অন্যদিকে, সিআরজিও ট্রান্সফরমারে কোর ম্যাটিরিয়াল হিসেবে সিলিকন স্ট্রিপ ইস্পাত ব্যবহার করা হয়। এই ট্রান্সফরমার তৈরি করতে খরচ কম। কিন্তু এটিতে সিস্টেম লস বেশি হয়। ফলে এটি কোনো প্রতিষ্ঠান কিংবা দেশের তুলনায় ব্যবসায়ীদের জন্য বেশি লাভজনক। দেশে সিআরজিও ট্রান্সফরমার তৈরি করছে অন্তত ১২টি প্রতিষ্ঠান। ফলে এই ট্রান্সফরমার কেনার জন্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে বেশি প্রভাবিত করতে চান ব্যবসায়ীরা।
  


  


এবিনিউজ টুয়েন্টিফোর বিডিডটকম//এফ//








সম্পাদক: শাহীন চৌধুরী
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: হেলেনা বিলকিস চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক: শঙ্কর মৈত্র, নির্বাহী সম্পাদক: বরুণ ভৌমিক নয়ন, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: সৈয়দ আফজাল বাকের, ঢাকা অফিস: ২/১ হুমায়ুন রোড (কলেজ গেট) মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭ ফোন: ৮৮-০২-৯১১৯১১৬, হটলাইন: ০১৭১১-৫৮৩৬২৩, ০১৭১৭-০৯৮৪২৮, চট্টগ্রাম অফিস- আবাসিক সম্পাদক: জাহিদুল করিম কচি, নাসিমন ভবন (দ্বিতীয় তলা) ১২১, নূর আহমেদ রোড, চট্টগ্রাম ফোন: ০৩১-২৫৫৭৫৪২ হটলাইন: ০১৭১১-৩০৭১৭১, E-mail : [email protected], Web : www.abnews24bd.com, Developed by i2soft Technology Ltd.
Close