সদ্য সংবাদ :
অর্থ ও বাণিজ্য

করোনার প্রভাবে অনুষ্ঠাননির্ভর ব্যবসায় ধস

Published : Sunday, 28 June, 2020 at 7:32 AM
স্টাফ রিপোর্টার:করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় গত মার্চের শেষ সময় থেকে পারিবারিক বা সামাজিক অনুষ্ঠান প্রায় বন্ধ রয়েছে। এখন আর ঘটা করে বিয়ে, জন্মদিন বা পার্টি অনুষ্ঠিত হতে দেখা যায় না বললেই চলে। পার্টি সেন্টার, কমিউনিটি বা কনভেনশন সেন্টারগুলো খালি পড়ে রয়েছে। বুকিং দিতেও কেউ আসে না বলে জানান সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। পারিবারিক বা সামাজিক অনুষ্ঠান না হওয়ায় পোশাক, গয়না, ডেকোরেটরের ব্যবসায়ও নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক জুবায়ের শাহরিয়ার মা-বাবার একমাত্র সন্তান। গত জানুয়ারিতে তাঁর জন্য আরেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষিকা শ্রাবন্তি ইসলামকে পাত্রী হিসেবে চূড়ান্ত করা হয়। বিয়ের দিন ঠিক করা হয় ১৪ এপ্রিল। বিয়ের অনুষ্ঠান করতে কমিউনিটি সেন্টার বুক করা হয় অগ্রিম অর্থ দিয়ে। কিন্তু করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় তাঁদের বিয়ে স্থগিত করা হয়। জুবায়ের ও শ্রাবন্তির বিয়ের পোশাক, গয়নাসহ অন্যান্য কেনাকাটার জন্য প্রায় ১০ লাখ টাকার বাজেট থাকলেও শেষ পর্যন্ত বিয়ে স্থগিত হওয়ায় কোনো কেনাকাটা করা হয় না।

জুবায়ের শাহরিয়ার বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় জনসমাগম হয় এমন পারিবারিক ও সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজন থেকে বিরত থাকতে সরকারি নির্দেশ আছে। আত্মীয়স্বজন, বন্ধু, পরিচিতজন ছাড়া বিয়ের অনুষ্ঠান করা সম্ভব নয়। আমার এবং শ্রাবন্তির মধ্যে বিয়ে হবে—এ বিষয়ে দুই পরিবার একমত থাকলেও করোনা শেষ না হলে বিয়ে করা সম্ভব হবে না। কবে করোনা শেষ হবে তা কেউ জানি না। করোনার কারণে আমাদের বিয়ে অনিশ্চিত হয়ে গেছে।’ তিনি বলেন, ‘কমিউনিটি সেন্টার অগ্রিম অর্থ দিয়ে বুকিং দিয়েও বাতিল করেছি। টাকা ফেরত নিয়ে নিয়েছি। কেনাকাটা বন্ধ রাখা হয়েছে।’

রাজধানীর একটি সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসক সেমন্তি রহমান। তাঁর বাবা অসুস্থ। তিনি মেয়ের জামাই দেখতে চান অর্থাত্ নিজকন্যাকে বিবাহিত দেখতে চান। বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করে কার্ড ছাপানোর অর্ডার দেওয়া হয়। কিন্তু করোনার কারণে বিয়ে আপাতত বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে উভয় পরিবার। কার্ড ছাপানোর অর্ডারও বাতিল করা হয়েছে। অন্যান্য কেনাকাটা, পার্টি সেন্টার বুকিং—সব বন্ধ রাখা হয়েছে। করোনা শেষ হলেই বিয়ের আয়োজন শুরু হবে। তবে সেটা কবে, তা অনিশ্চিত।

জুবায়ের, শ্রাবন্তি আর সেমন্তির মতো করোনার কারণে অনেকের বিয়েই স্থগিত হয়ে গেছে। কবে করোনা শেষ হবে তা জানা নেই কারো। আর তাই সব বিয়ের আয়োজনও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আর এতে বিয়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যবসায়েও নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

বিয়ের মতো করোনার কারণে বড় করে জন্মদিনের আয়োজনও বন্ধ। মিরপুর ১৩ নম্বরের বাসিন্দা স্কলাসটিকা স্কুলের ছাত্রী সাত বছরের নিতু। প্রতিবছর ৩ মে সহপাঠী, আত্মীয়স্বজন, পরিচিতজনদের উপস্থিতিতে তাঁর জন্মদিনের অনুষ্ঠান ধুমধামের সঙ্গে উদ্‌যাপন করা হয় নামি রেস্তোরাঁয়। মেয়ের জন্মদিন উদ্যাপন করতে আলাদা বাজেট রাখা হয়। এবারে করোনার কারণে নিতুর জন্মদিন উদ্‌যাপন বন্ধ। করোনার কারণে বিভিন্ন পার্টি সেন্টার, কমিউনিটি বা কনভেনশন সেন্টার, ক্লাব, রেস্তোরাঁয় বিয়ে, জন্মদিন বা পার্টির আয়োজন করতে আসছে না কেউ।

প্রায় সারা বছরই বিভিন্ন অনুষ্ঠান চলে রাজধানীর উত্তরা এলাকায় অবস্থিত সোনিয়া পার্টি সেন্টারে। এখানকার কর্মকর্তা রিয়াজ  বলেন, ‘গত কয়েক বছর থেকে বছরের ২৬ মার্চ, পহেলা বৈশাখ ঘিরে প্রতিবছর বিয়েসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান বেশি হয়। আমাদের রোজগারও ভালো ছিল। কিন্তু এবার ২০ মার্চ থেকে সব বন্ধ। যাঁরা বুকিং দিয়েছেন তাঁরা করোনার কারণে আপাতত অনুষ্ঠান করবেন না বলে জানিয়েছেন। কবে আবার বুকিং দেবেন, প্রশ্ন করা হলে সবাই পরে জানাবেন বলে আমাদের জানিয়েছেন। আমাদের আয় নেই বললেই চলে।’

পারিবারিক ও সামাজিক অনুষ্ঠান বন্ধ থাকায় ডেকোরেটর, পোশাক, গয়না, লাইটিংসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যবসায়ও ধস নেমেছে। মিরপুর বেনারসি পল্লীর শাড়ির দোকান পালকির বিক্রয় কর্মকর্তা অকিল উদ্দিন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘করোনার কারণে বিয়েসহ সব অনুষ্ঠান বন্ধ থাকায় আমাদের শাড়ির অর্ডার নেই বললেই চলে। এমন পরিস্থিতি আগে কখনো হয়নি।’ বাংলাদেশ জুয়েলারি সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়াল  বলেন, ‘করোনার কারণে বিয়েসহ অন্যান্য অনুষ্ঠান বন্ধ থাকায় গয়না বিক্রি নেই বললেই চলে। আমাদের জন্য সময়টা ভালো যাচ্ছে না।’

এবিনিউজ টুয়েন্টিফোর বিডিডটকম//এম.এস//







সম্পাদক: শাহীন চৌধুরী
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: হেলেনা বিলকিস চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক: শঙ্কর মৈত্র, নির্বাহী সম্পাদক: বরুণ ভৌমিক নয়ন, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: সৈয়দ আফজাল বাকের, ঢাকা অফিস: ২/১ হুমায়ুন রোড (কলেজ গেট) মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭ ফোন: ৮৮-০২-৯১১৯১১৬, হটলাইন: ০১৭১১-৫৮৩৬২৩, ০১৭১৭-০৯৮৪২৮, চট্টগ্রাম অফিস- আবাসিক সম্পাদক: জাহিদুল করিম কচি, নাসিমন ভবন (দ্বিতীয় তলা) ১২১, নূর আহমেদ রোড, চট্টগ্রাম ফোন: ০৩১-২৫৫৭৫৪২ হটলাইন: ০১৭১১-৩০৭১৭১, E-mail : [email protected], Web : www.abnews24bd.com, Developed by i2soft Technology Ltd.
Close