সদ্য সংবাদ :
স্বাস্থ্য

মাতৃমৃত্যু রোধে হাসপাতালে প্রসবের উপর গুরুত্বারোপ ওজিএসবি'র

Published : Sunday, 4 December, 2022 at 3:19 PM
স্টাফ রিপোর্টার: অদক্ষ ধাত্রীর মাধ্যমে ডেলিভারির কারণে মাতৃমৃত্যু রোধ করা কঠিন হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। বর্তমানে ৫০ শতাংশ গর্ভবতী মা প্রাতিষ্ঠানিকভাবে প্রসব করান। আর বাকী ৫০ শতাংশ অদক্ষ দাইয়ের হাতে প্রসব করাতে গিয়ে ঝুঁকির মুখে পড়েন। এজন্য ১০০ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক প্রসব করানো আবশ্যক বলে মন্তব্য করেছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।


রোববার (৪ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে  অবসটেট্রিক্যাল  অ্যান্ড গাইনোকোলজিক্যাল সোসাইটি অব বাংলাদেশের (ওজিএসবি) ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত বিশেষ সংবাদ সম্মেলনে তারা এসব কথা বলেন।


বক্তারা বলেন, স্বাধীনতার পর দেশে প্রতিদিন গড়ে ৪০ জন মা এবং ৫০০ নবজাতকের মৃত্যু হতো। বর্তমানে তা অনেক কমিয়ে আনা হয়েছে। এখন প্রতি লাখে ১৬৪ মায়ের মৃত্যু হয়। তবে এটিকে আরও কমিয়ে ১০০’র নিচে  নামাতে চায় অবসটেট্রিক্যাল এন্ড গাইনীকোলজিক্যাল সোসাইটি অব বাংলাদেশ (ওজিএসবি)। 


আয়োজক সংগঠনের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক রওশন আরা বেগম বলেন, দেশে ছয় হাজার নারীর জন্য একটি ক্লিনিক আছে। প্রান্তিক পর্যায়েও প্রসূতি মায়েরা যেন স্বাস্থ্য সেবা পান, সেজন্য সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে। তারপরেও গ্রামের অধিকাংশ বাড়িতেই সন্তান প্রসব করানো হয়। অবস্থা পরিবর্তনের জন্য ৮০০০ মিড ওয়াইফ প্রশিক্ষণ নিয়ে বসে আছে। তাদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা জরুরি।


অনুষ্ঠানে ওজিএসবির সভাপতি অধ্যাপক ডা. ফেরদৌসি বেগম, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. গুলশান আরা, সিনিয়র সাংবাদিক নাসিমুন আরা হক মিনু, অধ্যাপক ডা. রওশন আরা বেগম, অধ্যাপক ডা. পারভিন ফাতেমা, অধ্যাপক ডা. সামিনা চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. কোহিনুর বেগম, অধ্যাপক ডা. সেহেরিন ফরহাদ সিদ্দিকা, অধ্যাপক ডা. সালেহা বেগম চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. ফারহানা দেওয়ান এবং অধ্যাপক ডা. এস কে জিন্নাত আরা নাসরিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওজিএসবির সভাপতি অধ্যাপক ফেরদৌসি বেগম বলেন, স্বাধীনতার পর প্রতিদিন প্রায় ৪০ মা এবং ৫০০ নবজাতক মারা যেত। এ অবস্থায় আমরা কাজ শুরু করেছি। লাখে প্রায় ৫০০ মায়ের মৃত্যু হতো। বর্তমানে এটি ১৬৪ জনে নেমে এসেছে। তবে এটাকে আরও কমিয়ে আনতে হবে। এখনে প্রধান প্রতিবন্ধকতা অপ্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারি। এখনও শতকরা ৫০ ভাগ ডেলিভারি বাড়িতে অদক্ষ ধাত্রীর মাধ্যমে হয়। আমরা সেটাকে প্রাতিষ্ঠানিক করতে চাই। যেন মাতৃ ও শিশু মৃত্যু না ঘটে।

বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুল আরা হক বলেন, ‘মাতৃমৃত্যু রোধে সবথেকে জরুরি নারীকে মানুষ হিসেবে সম্মান করা। নারী মৃত্যুর কারণ, সমাজে নারীর জীবনের মূল্য নেই। বর্তমানে লাখে ১৬৪ জন মা মারা যায়। আমরা এটাকে ৭০ এ নামিয়ে আনার লক্ষ্যে কাজ করছি। যদিও আমাদের চাওয়া একটা মায়েরও যেন মৃত্যু না হয়। আমরা নারীরা কেন একজন মানুষকে জন্ম দিতে গিয়ে মৃত্যুবরণ করবো? আমাদেরও মানুষ হিসেবে সুস্থ্যভাবে বেঁচে থাকার অধিকার আছে। তাই মায়ের মৃত্যু রোধে সমাজে নারীদের মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রসব সংক্রান্ত বিভিন্ন জটিলতায় করণীয় এবং উদীয়মান চিকিৎসকদের পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রয়োজনীয় বিষয়বস্তু নিয়ে নতুন সংযোজন বাংলাদেশের প্রথম ইউটিউব চ্যানেল ‘ওজিএসবি স্বাস্থ্যশিক্ষা’ উদ্বোধন করা হয়।




এবিনিউজ টুয়েন্টিফোর বিডিডটকম//এফ //








সম্পাদক: শাহীন চৌধুরী
উপদেষ্টা সম্পাদক: হেলেনা বিলকিস চৌধুরী, নির্বাহী সম্পাদক: বরুণ ভৌমিক নয়ন, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: সৈয়দ আফজাল বাকের, ঢাকা অফিস: ২/১ হুমায়ুন রোড (কলেজ গেট) মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭ ফোন: ৮৮-০২-৪৮১১৯৪৯৫, হটলাইন: ০১৭১১-৫৮৩৬২৩, ০১৭১৭-০৯৮৪২৮, চট্টগ্রাম অফিস- আবাসিক সম্পাদক: জাহিদুল করিম কচি, নাসিমন ভবন (দ্বিতীয় তলা) ১২১, নূর আহমেদ রোড, চট্টগ্রাম ফোন: ০৩১-২৫৫৭৫৪২ হটলাইন: ০১৭১১-৩০৭১৭১, E-mail : abnews13@gmail.com, Web : www.abnews24bd.com, Developed by i2soft Technology Ltd.
Close